সেপ্টেম্বর ১৮, ২০২০
১০:১১ অপরাহ্ণ

উলুধ্বনি ও শঙ্খধ্বনি প্রতিযোগিতার সিলেট বিভাগের বাছাই পর্ব সম্পন্ন।

খবর ডেস্কঃ- বাংলাদেশ পূজা উদযাপন পরিষদ কেন্দ্রীয় কমিটির উদ্যোগে জাতীয় পর্যায়ে উলুধ্বনি ও শঙ্খধ্বনি প্রতিযোগিতার সিলেট জেলা শাখার বাছাই পর্ব ভার্চ্যুয়াল পদ্ধতিতে সম্পন্ন হয়েছে।

লাইভ অনুষ্ঠানে সিলেট বিভাগীয় যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট মৃত্যুঞ্জয় ধর ভোলার সভাপতিত্বে ও কেন্দ্রীয় সদস্য অধ্যাপক রজত কান্তি ভট্টাচার্য্যের সঞ্চালনায় উক্ত লাইভ অনুষ্ঠানে ভার্চ্যুয়ালে যুক্ত হন বাংলাদেশ পূজা উৎযাপন পরিষদ কেন্দ্রীয় কার্য নির্বাহী কমিটির সভাপতি মিলন কান্তি দত্ত, প্রতিযোগীতা উদযাপন কমিটির আহবায়ক বিশিষ্ট শিল্পপতি জে. এল. ভৌমিক, পূজা পরিষদ কেন্দ্রীয় কমিঠির সাবেক সাধারণ সম্পাদক জয়ন্ত কুমার দেব, প্রতিযোগীতা কমিটির সদস্য সচিব বিশিষ্ট মনোবিজ্ঞানী ড. ছায়া ভট্টাচার্য্য, পূজা পরিষদ সিলেট বিভাগের সাংগঠনিক সম্পাদক বিপ্লব দে, কেন্দ্রীয় সদস্য মুক্তিযোদ্ধা জয়ন্তী রায়।

উক্ত প্রতিযোগীতায় বিচারক হিসাবে উপস্থিত ছিলেন এডভোকেট বিজয় কৃষ্ণ বিশ্বাস, বিশিষ্ট শিক্ষাবিদ বিনতা দেবী, এডভোকেট বনানী দাস ইভা।

প্রতিযোগীতার শুভ সূচনা করে সংক্ষিপ্ত বক্তব্যে পূজা পরিষদ এর কেন্দ্রীয় সভাপতি মিলন কান্তি দত্ত বলেন “উলুধ্বনি ও শঙ্খধ্বনির প্রনবের আবাহন করা হয়। যার দরুন উলুধ্বনি ও শঙ্খধ্বনি আমাদের মাঙ্গলীয় কাজের প্রতিক। উলুধ্বনি ও শঙ্খধ্বনি যতদুর পর্যন্ত পৌছায় ততদুর পর্যন্ত ঈশ্বর সাধনার ধ্বনি পৌছায়, যে কারনে যে কোনো ধরনের মাঙ্গলিক অনুষ্ঠানে উলুধ্বনি ও শঙ্খধ্বনি দেওয়া হয়। সনাতন ধর্মে এটা বিশ্বাস করা হয় যে, মহান ঈশ্বরের নাম যতদুর পর্যন্ত পৌছায় ততদুর পর্যন্ত কোনো জ্বরা ব্যাধি বা কোন অশুভ শক্তি প্রবেশ করতে পারে না। বক্তারা বলেন সনাতন গৃহে উলুধ্বনি ও শঙ্খধ্বনির যথাযথ প্রয়োগ সম্পর্কে আমাদের সবাইকে সচেতন হতে হবে। এই বাস্তবতা উপলব্ধি করে বাংলাদেশ পূজা উৎযাপন পরিষদ জাতীয় পর্যায়ে উলুধ্বনি ও শঙ্খধ্বনি প্রতিযোগীতার আয়োজন করেছে।

সংক্ষিপ্ত আলোচনায় আরো অংশ নেন সিলেট জেলা ভারপ্রাপ্ত সভাপতি গোপীকা শ্যাম পুরকায়স্থ চয়ন, সিলেট মহানগর সভাপতি সুব্রত দেব, সুনামগঞ্জ সভাপতি এডভোকেট বিমান কান্তি দাস, সিলেট জেলা সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট রঞ্জন ঘোষ, হবিগঞ্জ জেলা সাধারণ সম্পাদক শংকর শুভ্র রায়, সুনামগঞ্জ জেলা সাধারণ সম্পাদক মিলন বনিক, মৌলভীবাজার জেলা সাধারণ সম্পাদক পংকজ রায় মুন্না।

প্রতিযোগীতা শেষে বিচারকের সর্ব সম্মতি সিদ্ধান্তে উলুধ্বনি প্রতিযোগীতায় প্রথম স্থান অধিকার করেন – মুক্তা মন্ডল ( কোম্পানীগঞ্জ) সিলেট, ২য় স্থান লোপা ধর, মৌলভীবাজার, ৩য় স্থান পিংকি চন্দ, সুনামগঞ্জ।

শঙ্খধ্বনি প্রতিযোগীতায় প্রথম স্থান অর্জন করেন সিমলা রানী দাস ( কোম্পানীগঞ্জ) সিলেট, ২য় স্থান সুমা রায়, সুনামগঞ্জ, ৩য় স্থান সুস্মিতা লাহেড়ী ( কোম্পানীগঞ্জ) সিলেট। বিজয়ীদের এবং বিজিতদের অংশগ্রহন মূলক সনদপত্র প্রদান করা হবে এবং বিজয়ীদের জাতীয় পর্যায়ে অংশগ্রহনের প্রস্তুত নেওয়ার আহবান জানানো হয়।

শেয়ার করুন

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *