নভেম্বর ২৬, ২০২০
৫:১৪ অপরাহ্ণ

ছাতকে আত্মহত্যা করলো উচ্চ শিক্ষিত এক যুবতী

খবর ডেক্সঃ- ছাতকে বেকারত্বের অভিশাপ থেকে মুক্তি পেতে আত্মত্যার পথ বেচে নিয়েছে কলসুমা বেগম(৩০) নামের এক উচ্চ শিক্ষিত যুবতি। বসত ঘর সংলগ্ন একটি আম গাছের ডালের সাথে গলায় রশি দিয়ে ফাস লাগিয়ে সে আত্মহত্যা করে। বৃহস্পতিবার সকালে তার ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করে মর্গে প্রেরন করেছে পুলিশ। কলসুমা বেগম ছাতক সিমেন্ট কারখানার ইঞ্জিনিয়ারিং টিলার ৬ নং বাসার বাসিন্দা কারখানার সমবায় সমিতির অবসরপ্রাপ্ত কর্মকর্তা সিরাজুল ইসলামের কন্যা। বুধবার রাতে প্রতিদিনের মতো রাতের খাবার খেয়ে নিজ কক্ষে ঘুমিয়ে পড়ে কলসুমা। বৃহস্পতিবার ফজরের নামাজ আদায় করে মেয়েকে নিজ কক্ষে না দেখে তাকে খুঁজতে থাকেন বাবা সিরাজুল ইসলাম। এক পর্যায়ে বসতঘর সংলগ্ন একটি আম গাছের ডালের সাথে মেয়ের ঝুলন্ত লাশ দেখে চিৎকার করতে থাকেন তিনি। খবর পেয়ে ছাতক থানার এসআই আতিক ঘটনাস্থল থেকে লাশ উদ্ধার করে সুনামগঞ্জ মর্গে প্রেরন করেন। এ সময় পৌর কাউন্সিলর আখলাকুল আম্বিয়া সোহাগ ও সুদীপ দে উপস্থিত ছিলেন। স্থানীয় সুত্রে জানা যায়, এমএ পাস করা কুলসুমা পরিবারের দুঃখ ঘুচাতে বিভিন্ন সরকারী দপ্তরে চাকুরীর জন্য নিয়মিত আবেদন করতে থাকে। অবসর প্রাপ্ত পিতার পরিবারে বোঝা না হয়ে পরিবারকে সহযোগিতা করতে সে চাকুরীর জন্য হন্য হয়ে উঠে। কিন্তু ভাগ্য তাকে সহায়তা না করায় এক পর্যায়ে তার সরকারী চাকুরীর বয়সসীমা পেরিয়ে যায়। অপর দিকে উপযুক্ত পাত্রের হাতে কলসুমাকে পাত্রস্থও করতে পারছিলেন না তার পরিপার। এসব ঘটনায় মান-অভিমানে উচ্চ শিক্ষিত কলসুমা বেচে নেয় আত্মহত্যার পথ। অবশেষে তাই ঘটলো কুলসুমার জীবনে। এ ঘটনায় থানায় ইউডি মামলা রুজু করা হয়েছে।

শেয়ার করুন

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *