ঠাকুরগাঁও প্রতিনিধি
নভেম্বর ১৫, ২০২১
৯:৩১ অপরাহ্ণ
তালাক মানেন না স্বামী, পুলিশে দিলেন স্ত্রী

তালাক মানেন না স্বামী, পুলিশে দিলেন স্ত্রী

বছরখানেক আগে রোজিনা বেগম (৩৫) তালাক দেন মানিক মিয়াকে (৪৬)। কিন্তু সেই তালাক মানতে নারাজ মানিক মিয়া। তাই বারবার স্বামীর অধিকার চেয়ে ছুটে যান রোজিনার কাছে। এতে অতিষ্ঠ হয়ে সাবেক স্বামীকে পুলিশের হাতে তুলে দিয়েছেন রোজিনা বেগম।

রোববার (১৪ নভেম্বর) রাতে সাবেক স্ত্রীর অভিযোগের ভিত্তিতে মানিক মিয়াকে পুলিশ গ্রেফতার করে। ঘটনাটি ঠাকুরগাঁও সদর উপজেলার মন্দিরপাড়ার।

এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, বছর দুয়েক আগে প্রথম স্বামীকে ছেড়ে মানিককে বিয়ে করেন রোজিনা। মানিকও প্রথম স্ত্রীকে রেখে রোজিনাকে নিয়ে ঢাকায় সংসার করতে থাকেন। তবে বিয়ের বছরখানেক পর বনিবনা না হওয়ায় বেশকিছু অভিযোগ এনে স্বামীকে তালাক দেন রোজিনা। সেই তালাক মেনে নিয়ে প্রথম স্ত্রীর কাছে ফিরেও যান মানিক মিয়া। রোজিনাও ঠাকুরগাঁওয়ে প্রথম ঘরের ছেলে মেহেদির বাসায় বসবাস শুরু করেন। কিন্তু মাস ছয়েক পর আবার রোজিনার পিছু নেন মানিক। বারবার রোজিনার বাসায় গিয়ে তালাক হয়নি জানিয়ে নিজের বাসায় থাকতে বলেন তিনি  না যেতে চাইলে মারধরও করতে থাকেন।

রোজিনার প্রতিবেশী রাহাত জানান, কয়েকদিন পরপরই রোজিনার বাসা থেকে চিৎকার-চেঁচামেচি শব্দ শোনা যায়। রোজিনাকে বাসায় নিয়ে যেতে চান মানিক। কিন্তু রোজিনা মানা করলেই মারধর শুরু করেন মানিক। রোববারও একই ঘটনার একপর্যায়ে রোজিনা ছুটে বাইরে এসে এলাকাবাসীর সাহায্যে পুলিশে খবর দেন।

রোজিনা বলেন, মানিক মিয়াকে বিয়ে করা আমার সবচেয়ে বড় ভুল ছিল। ওই লোক (মানিক) আমার গয়না বিক্রি করে খেয়েছে, আমার সব টাকাও খেয়ে শেষ করেছে। আমাকে মারধর করত। তাই তাকে তালাক দিয়ে দিয়েছি। এখন আমাকে আবার সংসার করতে বলে। তা না হলে আমার সঙ্গে নিজের তোলা গোপন ছবি ইন্টারনেটে ছেড়ে দেয়র হুমকি দেয়, মারধর করে।

রোজিনা আরো জানান, মানিকের কাছ থেকে রেহাই পেতে এর আগে দুবার স্থানীয় প্রতিনিধি ও এলাকাবাসী নিয়ে বসেও কোনো লাভ হয়নি। পরে পুলিশে অভিযোগ দেয়া হয়। তবুও মানিক বিরক্ত করতেই থাকে। অবশেষে পুলিশকে খবর দিয়ে ঘটনাস্থল থেকে মানিককে তুলে দিয়েছেন তাদের হাতে। তবে জেল থেকে বের হয়ে মানিক আবার কিছু করতে পারে – সেই ভয়ে শঙ্কিত রোজিনা।

ঠাকুরগাঁও সদর থানার ওসি তানভীরুল ইসলাম জানান, রোজিনা এর আগেও অভিযোগ করেছেন। তখন মানিককে সাবধান করে দেয়া হয়। তারপরও তিনি রোজিনাকে অত্যাচার করতে থাকেন – এমন জানার পর তাকে আটক করে আনা হয়েছে। পরে সাবেক স্ত্রী রোজিনার বাদী হয়ে করা মামলায় তাকে গ্রেফতার দেখানো হয়েছে।

গৌতম চন্দ্র বর্মন
ঠাকুরগাঁও
০১৭১৭৮৮৯৯৫০

শেয়ার করুন

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *