দিরাই প্রতিনিধি
জুলাই ১৩, ২০২২
১২:৫৪ পূর্বাহ্ণ
দিরাইয়ে ফ্রি মেডিকেল ক্যাম্প উদ্বোধন

দিরাইয়ে ফ্রি মেডিকেল ক্যাম্প উদ্বোধন

যুক্তরাজ্য ভিত্তিক সমাজসেবী সংগঠন দিরাই শাল্লা কালচারাল এন্ড ওয়েলফেয়ার এসোসিয়েশন ইউকে’র উদ্যোগে সুনামগঞ্জের দিরাই ও শাল্লা উপজেলার বন্যা দুর্গত অসহায় রোগীদের জন্য ফ্রি মেডিকেল ক্যাম্পের উদ্বোধন করা হয়েছে।

মঙ্গলবার দুপুর ১২ টায় দিরাই জালাল সিটি সেন্টারের কনফারেন্স হলে ফ্রি মেডিকেল ক্যাম্পের উদ্বোধন উপলক্ষে আয়োজিত আলোচনা সভায় সভাপতিত্ব করেন, বিশিষ্ট রাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব আব্দুল লতিফ জেপি।

প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন, দিরাই পৌরসভার মেয়র বিশ্বজিৎ রায়। প্রধান আলোচকের বক্তব্য প্রদান করেন, দিরাই শাল্লা কালচারাল এন্ড ওয়েলফেয়ার এসোসিয়েশন ইউকে’র সভাপতি খালেদ রেজা খান।

দিরাই রিপোর্টার্স ইউনিটির সভাপতি মোশাহিদ আহমদ সরদারের পরিচালনায় সভায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন, দিরাই উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান মো. মোহন চৌধুরী, অধ্যক্ষ হরিপদ দাস, সহকারী অধ্যক্ষ আবু জাফর সিদ্দিকী, প্রভাষক রফিকুল ইসলাম, শিক্ষক গোলাম মোস্তফা সরদার রুমি, সাংবাদিক জিয়াউর রহমান লিটন, শিক্ষানুরাগী শাহজাহান সিরাজ, দিরাই উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আর এম ও, ডা. রায়হান উদ্দিন, আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডা. প্রশান্ত তালুকদার, যুক্তরাজ্য প্রবাসী জনাব জমাদার উল্লা, অ্যাডভোকেট ওবায়দুর চৌধুরী মিশু, মাওলানা আবু নোমান সরদার, প্রভাষক মোস্তাহার মিয়া মোস্তাক, মিজানুর রহমান পারভেজ, গণমাধ্যমকর্মী রুকনুজ্জামান জহুরী, জীবন সূত্রধর, মুহিবুর রহমান, রবিনুর চৌধুরী প্রমুখ।

আয়োজক সূত্রে জানা যায়, ১৩ জুলাই বুধবার থেকে ১৭ জুলাই রবিবার পর্যন্ত প্রতিদিন ১০ টা থেকে বেলা ১টা পর্যন্ত দিরাই গার্লস স্কুল মার্কেটের দ্বিতীয় তলায় সংগঠনের নিজস্ব কার্যালয় থেকে ফ্রি মেডিক্যাল ক্যাম্প পরিচালনা করা হবে। এতে দিরাই ও শাল্লা উপজেলার বন্যা দুর্গত অসহায় রোগীদের মধ্যে বিনামূল্যে চিকিৎসা সেবা প্রদান করা হবে।

উল্লেখ্য, দিরাই শাল্লার পিছিয়ে পড়া জনগোষ্ঠীর জীবনমান উন্নয়নের লক্ষ্য নিয়ে ২০১১ সালে দিরাই- শাল্লা কালচারাল এন্ড ওয়েলফেয়ার এসোসিয়েশন ইউ.কে’র যাত্রা শুরু করে। এর পর থেকে ২০১২ সালে ৭ লক্ষ টাকার শীতবস্ত্র বিতরণ, ২০১৩ সালে দিরাই শাল্লার বিভিন্ন স্থানে ১২ টি টিউবওয়েল স্থাপন, ২০১৪ সালে গুণিজন সংবর্ধনা, ২০১৫ সালে ৩৫ জন কন্যাদায়গ্রস্থ পিতাকে আর্থিক সহায়তা প্রদান, ২০১৭ সালে ৮৫ জন বেকার মহিলাকে সেলাই মেশিন প্রদান, ২০১৮ সালে বন্যায় ফসল হারানো কৃষকদের মধ্যে ২০০ বস্তা চাল বিতরণ সহ ২০১৯ থেকে ২০২১ পর্যন্ত সংগঠনের অর্থায়নে ৭০০ অস্বচ্ছল শিক্ষার্থীকে সম্পুর্ন বিনামূল্যে কম্পিউটার প্রশিক্ষণ প্রদান করেছে। ২০২২ সালের রামাদ্বানে সুবিধা বঞ্চিত এলাকার ২২ টি মসজিদে ৪৪ জন হাফিজকে স্পন্সরের মাধ্যমে খতমে তারাবির ব্যবস্থা করেছে।

শেয়ার করুন

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *