অক্টোবর ১২, ২০২০
৫:৪৮ অপরাহ্ণ

সামাজিক মাধ্যমে অসত্য অশ্লীল পোস্ট দিলে শাস্তি পেতে হবে শিক্ষক-শিক্ষার্থীকে

খবর ডেক্সঃ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে সরকার বা রাষ্ট্রের ভাবমূর্তি নষ্ট হয় এমন কোন পোস্ট, ছবি অডিও বা ভিডিও আপলোড, কমেন্ট, লাইক, শেয়ার করা থেকে বিরত থাকার নির্দেশ দিয়েছে মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদপ্তর। সামজিক যোগাযোগ মাধ্যমে নানা বিভ্রান্তিমূলক তথ্য ছড়িয়ে পড়া রোধে এ নির্দেশনা দেয়া হয়েছে দাবি করা হয়। শিক্ষা অধিদপ্তর থেকে এসব নির্দেশনা দিয়ে আদেশ জারি করা হয়েছে।

অধিদপ্তরের মহাপরিচালক অধ্যাপক সৈয়দ ড. মো. গোলাম ফারুক স্বাক্ষরিত আদেশে বলা হয়েছে, ছাত্র-শিক্ষকদের মাঝে সচেতনতা তৈরি করতে এ নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। নির্দেশনাগুলোর মধ্যে রয়েছে, সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে সরকার বা রাষ্ট্রের ভাবমূর্তি নষ্ট হয় এমন কোন পোস্ট, ছবি অডিও বা ভিডিও আপলোড, কমেন্ট, লাইক, শেয়ার করা থেকে বিরত থাকতে হবে। একই সঙ্গে জাতীয় গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তি, প্রতিষ্ঠান বা অন্য কোন সার্ভিস বা পেশাকে হেয় করে এমন কোন পোস্ট দেয়া থেকে বিরত থাকতে হবে।

জাতীয় ঐক্য ও চেতনার পরিপন্থী কোন রকম তথা উপাত্ত প্রকাশ করা থেকে বিরত থাকতে হবে। কোন সম্প্রদায়ের ধর্মীয় অনুতিতে আঘাত লাগতে পারে এমন বা ধর্মনিরপেক্ষতার নীতি পরিপন্থী কোন তথ্য প্রকাশ করা যাবে না। সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বিনষ্ট বা আইন শৃঙ্খলার অবনতি ঘটতে পারে, এমন কোন পোস্ট, ছবি, অডিও বা ভিডিও ক্লিপ আপলোড, কমেন্ট, লাইক, শেয়ার করা থেকে বিরত থাকতে হবে।

জনমনে অসন্তোষ বা অপ্রীতিকর মনোভাব সৃষ্টি করতে পারে এমন কোন বিষয়ে লেখা অডিও বা ভিডিও প্রকাশ বা শেয়ার করা এবং ভিত্তি হীন, অসত্য বা অশ্লীল তথ্য প্রচার থেকে বিরত থাকতে হবে। ,

মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ থেকে জারি করা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ব্যবহারের গাইডলাইন, চাকরির বিধান ও এ বিষয়ে সরকারি নির্দেশনা অনুসরণ করে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ব্যবহার করবে।

নির্দেশনায় আরও বলা হয়েছে, প্রতিষ্ঠান প্রধানরা কোন কর্মকর্তা কর্মচারী সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ব্যবহারের বিধির ব্যত্যয় হলে তাৎক্ষণিক ব্যবস্থা নেবেন। প্রয়োজন হলে তদন্ত করে আঞ্চলিক অফিসের মাধ্যমে মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তরকে জানাবেন।

সামজিক যোগাযোগ মাধ্যমে সক্রিয় কোনগ্রুপ বা পেইজের এডমিন নীতিমালা পরিপন্থি বা নিজ দপ্তর বা সংস্থার বিপক্ষের কোন পোস্ট কমেন্ট অনুমোদন করবেন না। তহালে এডমিন ও পোস্ট দাতা উভয়ই সরকারি বিধি অনুসারে অভিযুক্ত হবেন এবং তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে।
সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে কোন ধরনের শৃঙ্খলা পরিপন্থি ও অপ্রীতিকর কোন কার্যকালাপযাতে না হয় সে বিষয়ে শিক্ষা প্রতিষ্ঠাগুলোর প্রধানদের দৃষ্টি রাখতে বলেছে মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তর।

শিক্ষার সব খবর সবার আগে জানতে দৈনিক শিক্ষার ইউটিউব চ্যানেলের সাথেই থাকুন। ভিডিওগুলো মিস করতে না চাইলে এখনই দৈনিক শিক্ষাডটকমের ইউটিউব চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করুন এবং বেল বাটন ক্লিক করুন। বেল বাটন ক্লিক করার ফলে আপনার স্মার্ট ফোন বা কম্পিউটারে স্বয়ংক্রিয়ভাবে ভিডিওগুলোর নোটিফিকেশন পৌঁছে যাবে।

শেয়ার করুন

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *